৩ লাখ টাকা বিনিয়োগে ৫টি জনপ্রিয় ব্যবসার আইডিয়া

৩ লাখ টাকার ব্যবসা

৩ লাখ টাকার ব্যবসা বলতে এখানে সেসব ব্যবসা কে বুঝানো হয়েছে যেগুলো ৩ লাখ টাকা বিনিয়োগের মধ্যে করা এবং একইসাথে লাভবান হওয়া সম্ভব।

বর্তমান সময়ে চাকরির বাজারের অবস্থা বেগতিক। আবার অনেকেই আছেন যারা চাকুরি জীবনে মানিয়ে নিতে পারছেন না। বরং স্বাধীনভাবে আয়েই শান্তি পান তারা। কিন্তু হাতে আছে সবমিলিয়ে ৩ লাখ। তাতে কি দমে যাবেন? মোটেই নাহ! একটু খেয়াল করলেই দেখবেন ৩ লাখ টাকার ব্যবসা বেশ ভালোভাবেই সম্ভব! এবং সেটা নিয়েই আমাদের আজকের এই লেখা যেখান থেকে আপনি পেয়ে যাবেন ৫ টি চমৎকার ৩ লাখ টাকার ব্যবসা আইডিয়া।

৩ লাখ টাকার ব্যবসা এর ৫টি আইডিয়া

৩ লাখ টাকা দিয়ে কি ব্যবসা করা যাবে এমন ৫টি জনপ্রিয় ব্যবসা এর তালিকা দেয়া হল।

  • ক্যাফে ব্যবসা।
  • ডেইরী ফার্ম এর ব্যবসা।
  • ট্রাভেল এজেন্সি এর ব্যবসা।
  • ডে কেয়ার এর ব্যবসা।
  • রেন্ট এ কার এর ব্যবসা।

ক্যাফে ব্যবসা

“কফি হাউজের সেই আড্ডা” মান্না দের এই গানের সাথে একাত্মতা অনুভব করতে পারে সকল বাঙালিই। উপমহাদেশে আদ্যিকাল থেকে শুরু করে আজ পর্যন্ত কফি র জনপ্রিয়তা বেড়েছে, কমেনি।  ৩ লাখ টাকার ব্যবসা হিসেবে চমৎকার একটি আইডিয়া হলো ছোট পরিসরে সুন্দরভাবে একটি ক্যাফে শুরু করা।

প্রয়োজন:

  • জায়গা নির্বাচন
  • দোকান ভাড়া
  • প্রয়োজনীয় কর্মচারি
  • আসবাবপত্র (কফিমেকার, ডিশ ইত্যাদি)
  • খাবার আইটেম

শিক্ষার্থী থেকে শুরু করে চাকুরিজীবী,  ক্লাসের ফাঁকে অথবা দিনভর ক্লান্তির চাকরি শেষে, এক কাপ কফির চুমুক দিতে পারে দারুণ স্বস্তি। তাই আপনাকে জায়গাটি পছন্দ করে নিতে হবে আশেপাশে কলেজ/ভার্সিটি/অফিস দেখে। মূলধন যেহেতু তুলনামূলকভাবে কম, শুরু করতে পারেন ছোট্ট একটি দোকান ভাড়া নিয়ে।

বর্তমান সময়ে ইন্টেরিয়র ডিজাইন খুব বেশি ম্যাটার করে। আধুনিকতা ও রুচিশীলতার ছাপ আপনার ক্রেতাদের আকৃষ্ট করবে। তারপরেই আসে ফুড আইটেমের ব্যাপার। আপনার সিগনেচার আইটেম কফির সাথে রাখতে পারেন মুখরোচক বিভিন্ন স্ন্যাকস আইটেম।  ব্যস, ৩ লাখ টাকার ব্যবসা শুরু করে দিন নিজের মত, নিজের স্টাইলে!

আরও পড়ুন- ১ লাখ টাকায় ব্যবসা

চা পাতার ব্যবসা

ডেইরী ফার্ম এর ব্যবসা

ডেইরি ফার্ম হতে পারে জুতসই একটি ৩ লাখ টাকার ব্যবসা। মূলধন একটু কম হলেও ছোট পরিসরে, সঠিকভাবে তথ্য নিয়ে, বুঝে শুনে শুরু করতে পারেন। আশা করা যায় খুব দ্রুতই লাভের মুখ দেখবেন এবং ধীরে ধীরে ব্যবসা বড় করতে সক্ষম হবেন।

প্রয়োজন: 

  • দুধের গরু
  • গোয়াল ঘর
  • কর্মচারী
  • খাবার সরবরাহ

একেবারে ছোটো আকারে, ৩ লাখ টাকার ব্যবসা টি শুরু করার জন্য দুইটি দুধের গরু কিনে যাত্রা করতে পারেন।  এমন জায়গায় গোয়াল ঘরটি স্থাপন করবেন যেখানে আশেপাশে দুধ বিক্রির ভালো সুযোগ রয়েছে এবং বেশ আলোবাতাসপূর্ণ। কর্মচারী রাখবেন সর্বোচ্চ ২ জন।  যদি প্রয়োজন হয় খরচ কমানোর জন্য শুরুর দিকে নিজেই দেখভাল করতে পারেন। মনে রাখবেন,  আপনার প্রথম প্রাধান্য হবে গরুদের পুষ্টিকর খাবার প্রদান ও যত্নে রাখা। তাদের উপরেই নির্ভর করছে আপনার ব্যবসার চাকা।

প্রথমমাসে যেটুকু লাভ পাবেন, সেটুকু খরচ না করে জমিয়ে রাখাটাই উত্তম হবে। বেশ কয়েকমাস পর, এই টাকাটুকু দিয়ে আরো দুটি গরু কিনে নেবেন। এভাবেই দেখবেন আপনার নিজের বাড়তি কোনো খরচ যাচ্ছেনা বরং বেশ ভালো রকম মুনাফা উঠে আসছে। একটা সময় আপনার এই ৩ লাখ টাকার ব্যবসা আপনাকে দেবে আরো লাখ লাখ টাকা।

আরও পড়ুন- ২ লাখ টাকায় ব্যবসা

শেয়ার ব্যবসা

ট্রাভেল এজেন্সি এর ব্যবসা

পায়ের তলায় শর্ষে? দিগদিগন্ত ঘুরে বেড়ানোতেই জীবনের স্বস্তি খুঁজে পান? তবে সেই স্বস্তিকেই আয়ের পথ করে নিতে পারলে তো সোনায় সোহাগা! আধুনিক যুগে এসে যাতায়াতের উন্নতিতে মানুষের ভ্রমনপিপাসা দিনকে দিন বাড়ছে। যদি ঘুরতে ভালোবাসেন,  ৩ লাখ টাকার ব্যবসার জন্য ট্রাভেল এজেন্সি কে রাখতে পারেন প্রথম পছন্দে।

প্রয়োজন:

  • বিভিন্ন জায়গা সম্পর্কে ধারণা
  • ভ্রমণস্থানে কানেকশন গড়ে তোলা
  • ট্রেড লাইসেন্স
  • মার্কেটিং

শুরুতে অবশ্যই ব্যবসার যেই কেন্দ্রবিন্দু অর্থাৎ , ভ্রমনস্থানগুলো সম্পর্কে ভালো ধারণা করে নিতে হবে, সেখান কার হোটেল ব্যবসায়ী, বিভিন্ন দোকানদারদের সাথে কানেকশন রেখে তাদের সঙ্গে একটি চুক্তিতে আসতে পারেন। তারপর আসে ট্রেড লাইসেন্সের ব্যপারটি।

যেহেতু আপনি ছোট পরিসরে ৩ লাখ টাকার ব্যবসা টি শুরু করছেন, ট্রেড লাইসেন্স পেতেও খুব একটা বেগ পেতে হবে না।  সর্বশেষ গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট, মার্কেটিং। ফেসবুক পেজে এবং ভ্রমণ সংক্রান্ত গ্রুপ গুলোতে পোস্ট করতে থাকুন, এভাবে কাস্টমার পেয়ে যাবেনই একসময়। আর শুরু করুন, শখের সম্মিলনে নিজের ব্যবসা!

আরও পড়ুন-.১০ হাজার টাকায় ২৫ টি ব্যবসার আইডিয়া

১০ লাখ টাকার ব্যবসা

ডে-কেয়ার ব্যবসা

বর্তমান সময়ে নারী পুরুষ সমানভাবে চাকরি ক্ষেত্রে বিরাজ করছেন।  কিন্তু বেশিরভাগ সময়েই, তাদের সবেধন নীলমণি শিশুটিকে সারাদিন আনন্দের মাঝে রাখার জন্য একটি নিরাপদ জায়গা তারা পান না। যেটি বর্তমান সময়ে বেশ ভালো সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাই ৩ লাখ টাকার ব্যবসা হিসেবে শুরু করতে পারেন একটি ডে কেয়ার সেন্টার।

প্রয়োজন:

  • একটি ফ্ল্যাট ভাড়া নেয়া
  • শিশুদের প্রয়োজনীয় সামগ্রী কেনা
  • লাইসেন্স নেয়া
  • কর্মী নিয়োগ
  • বিজ্ঞাপন

আপনার ভাড়া নেয়া জায়গাটি হওয়া উচিত একটি আলোবাতাস পূর্ণ নিরাপদ জায়গায়। ভালো এলাকায় ডে-কেয়ার সেন্টার টি হলে অভিভাবকরা আস্থা পাবেন। এই ডে কেয়ারে আপনি রাখতে পারেন শিশুদের জন্য খেলনা সামগ্রী, আরামদায়ক আসবাবপত্র,  টুকটাক পড়াশুনা,  ছবি আঁকার মত সৃজনশীল সামগ্রী।

এরপর আপনি আপনার লাইসেন্স সংগ্রহ করে নেবেন, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে।শিশুদের সামলানো খুব একটা সহজ কাজ নয়। কয়েকজন দক্ষ কর্মী ও শিশুশিক্ষক নিয়োগ দিতে পারেন যারা আপনার ডে কেয়ারে থাকা শিশুদের যত্নের পাশাপাশি, শেখার আগ্রহী করে তুলবেন।  এবং, অতি অবশ্যই আশেপাশের প্রি-স্কুল, নার্সারি, এবং আশেপাশের এলাকাগুলোয় শিঘ্রই আপনার ডে কেয়ার সেন্টারটির প্রচারণা শুরু করবেন। জানেনইতো, প্রচারে বাড়ে প্রসার!

আরও পড়ুন- ছোট ব্যবসার আইডিয়া

দৈনিক আয়ের ব্যবসা

রেন্ট এ কার এর ব্যবসা

পারিবারিক যেকোনো অনুষ্ঠান অথবা বন্ধুদের সাথে বেরোনো, গাড়ির তো দরকার পড়েই। এই দেশে নিজের গাড়ি কজনেরই বা আছে কিন্তু উৎসব,পার্বণে, অনুষ্ঠানে অথবা ঘুরতে যেতে, গাড়ির চাহিদা লেগেই থাকে সবসময়। তাই মোটামুটি ৩ লাখ টাকার আপনি শুরু করে দিতে পারেন এই ক্রমবর্ধমান চাহিদার ব্যবসাটি!

প্রয়োজন:

  • গাড়ি
  • গ্যারেজ
  • ট্রেড লাইসেন্স
  • ওয়েবসাইট / ফেসবুক পেজ

নিজের গাড়ি দিয়ে রেন্ট এ কারের ব্যবসা শুরু করা সবচেয়ে উত্তম। এতে করে ব্যবসার পুরো লাভটিই আপনি পাচ্ছেন। কোথাও কমিশন দেয়া লাগবে। শুরুতে যেহেতু ছোট পরিসরে শুরু করছে, একটি ছোটখাটো সাদামাটা গ্যারেজই যথেষ্ট।  খুব বেশি সাজসজ্জার প্রয়োজন পড়েনা।

তিনভাবে গাড়ি ভাড়া দেয়া যায় ১. বডি ভাড়া ২. প্যাকেজ এবং মাসিক ভাড়া। বডি ভাড়ায় একদিনের জন্য গাড়ির সমস্ত দায়িত্বই গ্রহীতা নেন,  প্যাকেজ ভাড়া নির্ধারিত হয় গ্রাহকের সাথে আলোচনা সাপেক্ষে এবং মাসিক ভাড়ায় কিলোমিটার হিসাব করে গ্রাহকের কাছ থেকে ভাড়া আদায় করা হয়। ওয়েবসাইট অথবা ফেসবুক পেজের মাধ্যমে মার্কেটিং করে, ৩ লাখ মূলধনেই জমে উঠবে আপনার এই ব্যবসাটি। ৩ লাখ টাকার ব্যবসা আইডিয়া এর মধ্যে এটি অন্যতম একটি ব্যবসা।

আরও পড়ুন- গ্রামে ব্যবসার আইডিয়া

১০ হাজার টাকায় ২৫ টি ব্যবসার আইডিয়া

৩ লাখ টাকার ব্যবসা- আরও কিছু আইডিয়া

৩ লাখ টাকার মধ্যে শুরু করা যায় এমন আরও কিছু ব্যবসা নিম্নে দেয়া হল।

  1. পরিবেশক এর ব্যবসা।
  2. রেস্টুরেন্ট এর ব্যবসা।
  3. ফার্মেসি এর ব্যবসা।
  4. পাইকারি ব্যবসা।
  5. স্টক লট (কাপড়) এর ব্যবসা।

বেকারত্বের অভিশাপে না থেকে, কি করবেন না করবেন এই চিন্তায় না ভুগে, এই লেখাটি পড়ে বেছে নিন আপনার পছন্দের ৩ লাখ টাকার ব্যবসা। নিজের ভাগ্যের চাকা ঘোরানোর চেষ্টা শুরু হোক তবে এখান থেকেই!

সম্পর্কিত পোস্ট- উৎপাদনমুখী ব্যবসার আইডিয়া

আরও পড়ুন- বর্তমানে সবচেয়ে লাভজনক ব্যবসা

ডিলারশিপ ব্যবসা

ফার্মেসী ব্যবসা

FAQ

৫টি ৬ লাখ টাকায় ব্যবসা কি কি?

৬ লাখ টাকায় শুরু করা যায় এমন ৫টি ব্যবসা হলঃ
১। মোবাইল এর পরিবেশক ব্যবসা।
২। গাড়ির পার্টস এর ব্যবসা।
৩। পাইকারি মুদি আইটেমের ব্যবসা।
৪। ক্রোকারিজ আইটেম এর ব্যবসা।
৫। কিডস খেলনা আইটেমের ব্যবসা।
৬। ফার্মেসী ব্যবসা।

Similar Posts

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।